আল্লাহ বলতে কিছু নেই ?আসলেই কি?

আল্লাহ বলতে কিছু নেই? আসলেই কি?

Spread the love

❝আমি আল্লাহ মানি না!! আল্লাহকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না!!❞ ~ নাস্তিক এনকাউন্টার………..
-আল্লাহ বলতে কিছু নেই? আসলেই কি? দেখি আল্লাহকে খুঁজে পাওয়া যায় কিনা? “সময়” সৃষ্টি হয় ১৫ বিলিয়ন বছর আগে, বিগব্যাং এর মাধ্যমে। কোনকিছু যখন সৃষ্টি, তখন “সৃষ্টি”টি করেছে বাইরের কেউ..ধরুন, আপনি একটি ক্যামেরা বানালেন, সেই ক্যামেরার একটা লিমিটেড স্পেসিফিকেশন আছে যা আপনি সেট করেছেন, তাই ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে ১০০ মেগাপিক্সেল ছবি তুলতে পারবেন না। তেমনি, আমাদের চিন্তাভাবনাও লিমিটেড একটা পর্যায়ে গিয়ে আর চলে না, ধ্বংস/সৃষ্টি/শুরু/শেষ “টার্ম”গুলো শুধুমাত্র আল্লাহর সৃষ্টির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, আল্লাহর ক্ষেত্রে না।

আল্লাহর শুরু নেই, শুরু হতে গেলে “সময়” লাগে কিন্তু “সময়” জিনিসটি একটি সৃষ্ট ব্যাপার। এখন যদি প্রশ্ন করি, কিভাবে সম্ভব। উত্তর একটাই। মানুষের চিন্তা লিমিটেড বা সীমাবদ্ধ। ধরুন একটা পিঁপড়া হেটে যাচ্ছে তার ১০ হাত দূরে একটা ব্যাঙ বসে আছে, আপনি স্পষ্টই দেখতে পাচ্ছেন ব্যাঙ ওই পিঁপড়াটাকে খুল্লাম খুল্লা করে দিবে, কিন্তু এই পরিস্থিতিতে ওই পিঁপড়ার ভবিষৎ শুধুই আপনি দেখতে পারছেন।

পিঁপড়ার এই ব্যাপারে কোন জ্ঞানই নেই একে বলে 1D আর আপনাকে যিনি উপর থেকে দেখছেন তাকে বলে 7D এখন এই পিঁপড়ার মত আপনার আল্লাহ সম্পর্কে জ্ঞান লিমিটেড কারণ একজন পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষককে আপনি জিজ্ঞেস করুন স্যার দুনিয়াতে যত পদার্থ বিজ্ঞানের বই আছে, যত সূত্র আছে, তত্ত্বসমূহ আছে এর মধ্যে আপনার জ্ঞান কত? উত্তরে তিনি বলবেন হয়তো আমি ১০% সম্পর্কে জানি।

আমি মার্কেটিং এ পোস্টগ্র্যাড, আপনি যদি আমাকে জিজ্ঞেস করেন আমি মার্কেটিং সম্পর্কে কুট্টুক জানি উত্তরে আমিও বলবো হয়তো ১০% তো আপনার এই ১০% জ্ঞানে হয়তো আপনি আল্লাহকে খুঁজে পাচ্ছেন না, হতে কি পারে না? আল্লাহ ওই- ৯০% জ্ঞান এর মধ্যে আছেন? যখন প্রশ্ন করেন “আল্লাহকে কে সৃষ্টি করেছেন?” তখন মনে করি আল্লাহর শক্তি বা নেচার হয়তো লিমিটেড। লিমিটেড আল্লাহকে মানুষ ক্রুশবিদ্ধ করে মারতে পারে!! লিমিটেড আল্লাহ দেখতে হয় মানুষের মত, তাদের হাত পা থাকে।

আমার আল্লাহ পাক দেখতে মানুষের মত না বা তিনি কোন কিছুতে সীমাবদ্ধ না। সীমাবদ্ধ আমরা, সীমাবদ্ধ এই পৃথিবী। কেপলার গ্রহ পৃথিবীর আয়তনের দ্বিগুন, নেপচুন কেপলারের দ্বিগুন, সেরিয়াস সূর্যের দ্বিগুন, UY Scuti গ্রহের সামনে অলডেব্রান সরিষার চাইতেও ছোট আর পৃথিবী? ৭০০০ বার জুম্ করলেও হয়তো আপনি দেখতে পারবেন না। এই রকম কোটি UY Scuti গ্রহ নিয়ে সৃষ্ট একটি মিল্কিওয়ে আর রকমারি বিলিয়ন মিল্কিওয়ে মিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে যার সামনে এই পৃথিবীর শক্তি সীমাবদ্ধ, পৃথিবীতে বসা ক্ষুদ্র বালি পরিমান আপনি “নাস্তিক” সীমাবদ্ধ।

আপনার মগজ সীমাবদ্ধ ঠিক সেই গর্ভে বাস করা যমজ শিশুর মত। একজন প্রসব পরবর্তী জীবনে বিশ্বাস করতো, আরেকজনে কাছে এগুলা ছিল অলীক কল্পনা। প্রথমজন বিশ্বাস করতো প্রসব পরবর্তী জীবনে মাতৃগর্ভের তুলনায় আলো অনেক বেশি, সেখানে পা দিয়ে হাঁটা যায়, মুখ দিয়ে খাদ্য গ্রহণ করা যায়।

এইসব শুনে দ্বিতীয় শিশুটি বলে বোকা!! প্রসব পরবর্তী জীবন বলে কি কিছু দেখেছো তুমি নিজ চোখে? এই শুনে প্রথম শিশুটি বললো হতে পারে সে জগতে আমাদের সাথে আমাদের মায়ের দেখা হবে। মা হয়তো সে জগতে আমাদের দেখাশুনা করবেন।’ দ্বিতীয় শিশু হেসে বলে মা! মা আবার কি? উর্বর মস্তিষ্কের কল্পনা

আল্লাহ বলতে কিছু নেই? আসলেই কি? শুনেন তাহলে আমার আল্লাহ কি?

যত মানুষ আজ পর্যন্ত পৃথিবীর বুকে হেঁটেছে, হাঁটবে, যত প্রাণী জন্ম নিয়েছে, যত মৎস পানির নিচে সাঁতরিয়েছে, যত পাখি আকাশের বুকে উড়িয়ে বেরিয়েছে, পৃথিবীর সমস্ত জমি, দেশ, তাদের সরকার, মিলিটারি ফোর্স, তাদের গবেষণা, বিজ্ঞান, জ্ঞান, টাকা, পয়সা, পৃথিবীর সমস্ত গাছ, সমস্ত ধুলা, যত নদী, সাগর, মহাসাগর, তার উপরে আকাশ, সমস্ত গ্রহ, উপগ্রহ, এক একটা প্ল্যানেট, প্রতিদিন ৭০,০০০ জন্ম নেয়া এক একটি ফেরেশতা, মিকাইল, জিব্রাইল, ইস্রাফিল, প্রথম স্বর্গ, দ্বিতীয় স্বর্গ, তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ট, সপ্তম স্বর্গ, তার উপরের বিশাল সাগর, তার উপরের ইস্তাওয়া যা আল্লাহর আরশ বহন করে-সব, সব, সব সবকিছু মৃত।

কিছু চলছে না, কিছু ঘুরছে না, কিছু থামছে না, কিছু সাতরাচ্ছে না, কিছু উড়ছে না। কোন কিছুর সামর্থ্য নেই বানানোর, সামর্থ্য নেই ভাঙার, সামর্থ্য নেই তোলার, সামর্থ্য নেই ছুড়ে ফেলার- কিন্তু এইগুলো তো হচ্ছে ভাঙছে, গড়ছে, উড়ছে, জন্ম নিচ্ছে। YES. আর এইগুলা সম্ভব হচ্ছে একমাত্র লা তুশরিকবিল্লাহ- শুধু মাত্র আমার মাবুদের দয়ায়।

আল্লাহ বলছে, ও আমার গোলাম তোরা সবাই নগ্ন; তারা ছাড়া যাদের আমি বস্ত্র দান করি, তোরা সবাই ক্ষুধার্ত তারা ছাড়া যাদের আমি খাদ্য দান করি….. he is the one, he doesnt need us we need him, he is ever living he is আল হাইয়ুম কাইয়ুম, আপনি এখন হেসেই বলতে পারে i am living what so special about that…..হ্যা আপনি বেঁচে আছেন আর আপনার বেঁচে থাকাটাই তার অস্তিত্বের বড় প্রমান….. লা তুশরিকবিল্লাহ 💓💓💓

তাই ❝আল্লাহ কে❞?? এই প্রশ্ন না করে প্রশ্ন কর, আল্লাহর সামনে আপনি, তুমি, তুই কে?

Leave a Comment: